শুক্রবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৪:২৬ পূর্বাহ্ন

পানছড়ি উপজেলায় রেশন বিতরণ বন্ধ

পানছড়ি উপজেলায় রেশন বিতরণ বন্ধ

khg-lgনিউজ অফ খাগড়াছড়ি, পানছড়ি প্রতিবেদক:  খাগড়াছড়ি জেলার পানছড়ি উপজেলার ১২টি গুচ্ছ গ্রামের হাজার খয়রাতী রেশন কার্ডধারী অর্ধহারে অনাহারে বসবাস করেছে বলে জানাগেছে। দীর্ঘ সাড়ে চার মাস যাবৎ গুচ্ছগ্রাম ভিক্তিক রেশন কার্ডের রেশন বন্ধ থাকায় এমন পরিবেশের সৃষ্টি হয়েছে বলে মনে করছে গুচ্ছ গ্রামবাসী।
অনুসন্ধানে জানাযায়, ১৯৮৬সালের বিরাজমান পরিস্থিতির সময় গুচ্ছ গ্রামবাসীর নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে সরকার বাঙ্গালীদের গুচ্ছ গ্রাম নামক বন্ধিশালায় জড়ো করে। ততসময়ে বাঙ্গালীরা নিজের সৃজনকৃত বাগ-বাগিচা ফেলে গুচ্ছ গ্রামে বন্দি হয়ে মানবেতর জিবণ যাপন করতে আরাম্ভ করলে সৃষ্টি হয় খাদ্যভাব। দীর্ঘ ৩বছর বাঙ্গালীরা চরম মানবেতর জিবণ কাটায়। এরপর ১৯৮৯ সালে এইচ এম এরশাদ খাগড়াছড়িতে সরকারী সফরে আসে। এই সফরে খাগড়াছড়ি টাউন হলের এক আলোচনা সভায় বাঙ্গালী কৃষক শ্রমিক কল্যাণ পরিষদের সিনিয়র সহ-সভাপতি একেএম সহিদুল ইসলাম খাগড়াছড়ির গুচ্ছ গ্রামে বসবাসরত বাঙ্গালী জন গোষ্ঠীর দুঃখ দূর্দশার কথা তুলে ধরলে, সেই আলোচনা সভায় জেনারেল এইচ এম এরশাদ বাঙ্গালীদের জন্য রেশনীং ব্যবস্থা চালুর নির্দেশ প্রদান করেন। এরপর কেটে গেছে ২৭টি বছর। অদ্যবদি বাঙ্গালীদের করা হয়নি পূর্ণবাসন। করে করা হবে তাও বলতে পারছে না কেউ। না আদো পূর্ণবাসন করা হবে কি না এই নিয়ে সন্দিহান বাঙ্গালীরা। পূর্ণবাসন না করায় একদিকে মৌলিক অধিকার থেকে যেমন হচ্ছে বঞ্চিত অপর দিকে পদার্পণ করছে দরিদ্রতার দিকে।

জানাযায়, প্রতিমাসে পরিবার প্রতি ৮৫কেজি খাদ্য শস্য দেওয়ার বিধান। সর্বশেষ সরকার গত জুন মাসের ১৫তারিখের দিকে ৩৫কেজি চাউল দেওয়া হয়, আর ৫৫কেজি গম দেওয়া হয়। এই ৩৫ কেজি চাউল দিয়ে ৪-৯জনের পরিবার চলতে হয় মাসব্যাপী। এই রেশন বিতরণের পর কেটে গেছে প্রায় সাড়ে ৬ মাস। অদ্য ১০/১১/২০১৬ ইং তারিখ অবদি নেই রেশন বিতরণের কোন আলামত। ফলে উপজেলা ৪১৩৭ টি পরিবার ও কার্ড বিহীন হাজার হাজার পরিবার অর্ধহারে অনাহারে দিন যাপন করছে।

পানছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আবু তাহের বলেন, লোকজন রেশনের অভাবে খুব কষ্টে আছে, তাই পুরাতন অথবা নতুন প্রকল্প চেয়ারম্যান দিয়েই দেক বা যাকে খুশি তাকে দিয়ে দেক কিন্তু জনগন যাহাতে খুব তাড়াতাড়ি তাদের রেশন পায় সেই ব্যাবস্থাই করা হউক।

এই পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা আইনত দন্ডণীয় অপরাধ।

Design & Developed BY Muktodhara Technology Ltd