শনিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২১, ০১:০৬ পূর্বাহ্ন

গুইমারা প্রেস ক্লাব নিয়ে ষড়যন্ত্রকারীদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদন: প্রেস ক্লাবের নাম ভাঙ্গিয়ে এলাকায় লোকজনের সাথে প্রতারণা শুরু করেছে, গুইমারা সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি এম সাইফুর রহমানের এক ব্যাক্তি কখনো সাংবাদিক ফোরাম, কখনো উপজেলা গুইমারা প্রেস ক্লাব এবং দক্ষিন জেলা প্রেস ক্লাব নামসহ তিনটি টিভি চ্যানেলের প্রতিনিধির পরিচয় দিচ্ছে এম সাইফুর রহমান। তিনি কয়টি সংগঠনের সভাপতি হতে চায় তা নিয়ে জনমনে নানা প্রশ্ন। প্রশাসনের চোখে ফাঁকি দিয়ে নানা ভাবে অপকর্ম চালিয়ে যাচ্ছে বলে গুইমারা প্রেস ক্লাবের সভাপতি সাংবাদিক নুরুল আলম অভিযোগ করেছে।
সম্প্রতি বিজিবি চতুর্থ প্রতিষ্ঠার বার্ষিকী উপলক্ষে গুইমারা উপজেলা প্রেস ক্লাব কার্যালয়ের এসে ১৮মে বিজিবি উক্ত অনুষ্ঠানের আমন্ত্রণ পত্রে এম সাইফুর রহমান প্রেস ক্লাব গুইমারা সভাপতি নাম ব্যবহার করার চিঠিটি নিয়ে গুইমারা সেক্টরে কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করেন গুইমারা উপজেলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি নুরুল আলম, বিজিবি সেক্টর গুইমারা অফিস কার্যালয় সুত্রে জানা যায় এম সাইফুর রহমান এই পরিচয় দিয়েছে।
এছাড়াও সাংবাদিক ফোরামের কার্যালয়ে নাম মুছে ভিবিন্ন সময়ের অনুষ্ঠানে তুলা ছবি সরিয়ে “উপজেলা প্রেস ক্লাব-গুইমারার নামে লিখে ষড়যন্ত্র করার জন্য মাঠে নেমেছে। এদিকে “ উপজেলা প্রেস ক্লাব গুইমারা দাবীকৃত ষড়যন্ত্রকারী এম সাইফুর রহমানের বিরুদ্ধে একাধিক দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে, সাংবাদিক ফোরাম অফিস কার্যালয় সড়ক ও জনপদের জায়গা দখল করে ঘর নির্মাণ করায় ঘরটি বেঙ্গে দেওয়া হয়।
পরে হাসপাতালে জায়গা দখল করে তাতে ব্যর্থ হওয়ায় কাশেম মার্কেটে প্রশাসনের সহযোগিতায় ভাড়ায় সাংবাদিক ফোরামের অফিস ঘর চুক্তি পত্র করে ভাড়া নিয়ে প্রতিষ্ঠানের চলার কিছুদিন পর ভিন্ন নাম ব্যবহার করা হচ্ছে। এই সকল বিষয় সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি এম সাইফুর রহমানকে একটি উকিল নোটিসের মাধ্যমে ব্যাখ্যা চেয়ে গুইমারা উপজেলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি বাদি হয়ে বিধি মোতাবেক ভাবে উকিল নোটিস প্রদান করিলেও তার জবাব দিতে ব্যর্থ হয়েছে। গুইমারা উপজেলা প্রশাসনের বেশ কয়জন কর্মকর্তাকে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ভাবে হয়রানি করেছে। তার মধ্যে যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা ও প্রানী সম্পদ কর্মকর্তা অভিযোগ করেন।
নুরুল আলম, সভাপতি গুইমারা উপজেলা প্রেসক্লাব জনান- যে, ইদানিং গুইমারা এলাকায় কিছু লোক সাংবাদিকের পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন হুমকি দিয়ে লোকজনের কাছ থেকে চাঁদাবাজি করে। এবিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য তিনি সকলের নিকট সহযোগিতা কামনা করেন। সাংবাদিকের পরিচয় দিয়ে যারা এসকল গর্হিত কাজ করছে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য তিনি আহ্বান জনান।
সাংবাদিকতার পরিচয় দিয়ে গুইমারা উপজেলায় যারা চাঁদাবাজি করছে তাদের বিরুদ্ধে জুন-২০১৮ আইন শৃঙ্খলা মিটিং-এ নিন্দা প্রস্তাব জ্ঞাপন করা হয়।

প্রকৃত গুইমারা উপজেলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি উকিলের মাধ্যমে, উকিল নোটিসের বিবরণের উল্লেখ করা হয়েছে গত ৬সেপ্তেম্বর ২০১৬ইং, মঙ্গলবার, বেলা ৩টায় গুইমারা প্রেস ক্লাব কার্যালয়ে পূর্বের কমিটি বিলুপ্ত করে “গুইমারায় উপজেলা প্রেস ক্লাব” এর নতুন কমিটি গঠন করা হয়েছে।
উপস্থিত সাংবাদিকদের মতামতের ভিত্তিতে পূর্বের কমিটির আব্দুল আলী’র ব্যাক্তিগত সমস্যার কারণে অব্যাহতি দেওয়ায় অন্য দুই সদস্য একাদিক মিটিং অনুপস্থিত ও সংগঠন পরিচালনায় অসহযোহিতা করায় পূর্বের কমিটি বিলুপ্ত করে উল্লেখিত তারিখে কমিটি গঠন করে শান্তি পূর্ণ ভাবে প্রতিষ্ঠান চলছে।


বিভিন্ন জাতীয়, আঞ্চলিক পত্রিকা ও অনলাইন মিডিয়ায় কর্মরত সংবাদকর্মীদের লিখিত আবেদনের প্রেক্ষিতে গত ৬ সেপ্টেম্বর ২০১৬ গুইমারা উপজেলা প্রেস ক্লাবের নতুন কমিটি গঠন করা হয়। পরে সকল সদস্যদের সম্মতিতে সাংবাদিক নুরুল আলমকে সভাপতি করে ১৩ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়েছে, তাহার জাতীয় প্রেস ক্লাব ঢাকা সভাপতি দপ্তরে অর্ন্তভূক্ত করা হয়েছে।
পূর্বে নাম ছিল- ‘‘গুইমারা প্রেসক্লাব” দুটি শব্দে ছিল, বতর্মানে নতুন উপজেলা করায়, উপজেলাকে সম্মান করে “গুইমারা উপজেলা প্রেস ক্লাব” নামে নাম করণ করা হয়েছে। তাও প্রেস ক্লাবের গঠণতন্ত্র সংশোধনের মাধ্যমে। একটি বৈধ প্রেস ক্লাব থাকা সত্তেও আবার নতুন এক প্রেস ক্লাব হতে পারেনা বর্তমান “গুইমারা উপজেলা প্রেস ক্লাব” এর সভাপতি ও সকল সদস্যবৃন্দ তার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে। তাদের এহেন কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার জোন দাবি জানানো হয়।

এই পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা আইনত দন্ডণীয় অপরাধ।

Design & Developed BY Muktodhara Technology Ltd
error: Content is protected !!