মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১, ১১:২৬ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
খাগড়াছড়িতে ১শ’টি বিদ্যালয়ে মাল্টিমিডিয়া উপকরণ বিতরণ প্রধানমন্ত্রীর অনুদানের চেক হস্তান্তর করলেন মহিলা এমপি বাসন্তী চাকমা এসএস ফাউন্ডেশনের ঈদ উপহার পেল শতাধিক পরিবার খাগড়াছড়ির এতিম শিক্ষার্থীদের মাঝে সেনাবাহিনীর খাদ্য সামগ্রী বিতরণ খাগড়াছড়িতে ৫২টি মসজিদ ও এতিমখানায় জেলা পরিষদের অর্থ উপহার নিহত নির্মাণ শ্রমিকের পরিবারের পাশে খাগড়াছড়ি সেনা রিজিয়ন অসহায় ১১০ পরিবারের মাঝে মাটিরাঙ্গা  কাঠ ব্যবসায়ী সমিতির ত্রাণ বিতরণ মাটিরাঙ্গায় আনসার ভিডিপি সদস্যদের মাঝে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ খাগড়াছড়িতে হতদরিদ্র খাদিজার পাশে দাঁড়ালো ছাত্রলীগ নেতা গুইমারায় ৪৫০ গ্রাম গাঁজাসহ ২ মাদক ব্যাবসায়ী আটক
রাঙামাটির ৪ উপজেলায় প্রার্থী দিতে ব্যর্থ আ’লীগ

রাঙামাটির ৪ উপজেলায় প্রার্থী দিতে ব্যর্থ আ’লীগ

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাঙামাটি: রাঙামাটির ১০ উপজেলার মধ্যে ৬ উপজেলায় প্রার্থী দিতে পারলেও ৪ উপজেলায় প্রার্থী দিতে ব্যর্থ হয়েছে দেশের সবচেয়ে প্রাচীন রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগ।

জেলার রাঙামাটি সদর, কাউখালী, কাপ্তাই, রাজস্থলী, বিলাইছড়ি এবং লংগদু উপজেলায় প্রার্থী দিয়েছে আ’লীগ। বাকী ৪ উপজেলায় অর্থাৎ বরকল, জুরাছড়ি, বাঘাইছড়ি এবং নানিয়ারচরে প্রার্থী দিতে ব্যর্থ হয়েছে আওয়ামী লীগ।

স্থানীয়ভাবে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বরকল, জুরাছড়ি ও বাঘাইছড়িতে সন্তু গ্রুপের নেতৃত্বাধীন পিসিজেএসএস এবং নানিয়ারচর উপজেলায় ইউপিডিএফ অত্যন্ত শক্তিশালী। এ উপজেলাগুলোতে স্থানীয় এসব সংগঠনের ত্রাসের কারণে আওয়ামী লীগ কোণঠাসা। নামে মাত্র আওয়ামী লীগের কার্যক্রম চলে এসব উপজেলায়। জাতীয় নির্বাচনেও এসব উপজেলায় আওয়ামী লীগের প্রার্থীর ভরাডুবি হয়েছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে ওইসব উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দদের সাথে কথা বলে জানা যায়, স্থানীয় আঞ্চলিক সশস্ত্র সংগঠনগুলোর ভয়ে আওয়ামী লীগসহ অন্যান্য রাজনৈতিক জাতীয় দলগুলো কথা বলতে পারে না। কারণ তাদের আছে অবৈধ অস্ত্র। এসব অস্ত্রের মাধ্যমে তারা সাধারণ জনগণকে জব্দ করে রাখে। চাঁদাবাজি, হত্যা ও গুমের মতো ঘটনা ঘটিয়ে ত্রাস চালায় এসব সংগঠন। অবৈধ অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীদের সামনে কীভাবে দাঁড়াবে সাধারণ মানুষ। যার কারণে ওইসব এলাকায় আওয়ামী লীগ কোনো সময় প্রার্থী দিতে পারে না।

এসব উপজেলার নেতারা আরও জানান, অতীতের কথা চিন্তা করুন। আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের উপর হামলা চালিয়ে হত্যা করা হয়েছে। প্রতি মূহর্তে ভয় দেখানো হচ্ছে। নেতৃবৃন্দের ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান পুঁড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেওয়া হয়েছে। সশস্ত্র এসব সন্ত্রাসী সংগঠনের কাছে তারা অসহায় বলে জানান।

এ ব্যাপারে রাঙামাটি জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাজী মুছা মাতব্বর জানান, আমরা অনেক হিসাব করে জেলার ৬টি উপজেলায় প্রার্থী দিলেও বাকী ৪টি উপজেলায় প্রার্থী দিতে পারিনি। প্রার্থী না দেওয়ার কারণ সম্পর্কে আওয়ামী লীগের এ নেতা জানান, এটা আমাদের একটি  কৌশলগত ব্যাপার।

এই পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা আইনত দন্ডণীয় অপরাধ।

Design & Developed BY Muktodhara Technology Ltd