শনিবার, ১৬ জানুয়ারী ২০২১, ০৪:৫৮ পূর্বাহ্ন

গুইমারায় পাহাড় কাঁটার মহাউৎসব, দেখার কেউ নেই

গুইমারায় পাহাড় কাঁটার মহাউৎসব, দেখার কেউ নেই

নুরুল আলম :: খাগড়াছড়ি জেলার গুইমারা উপজেলায় অবৈধভাবে ঘনবসতী সম্পূর্ন বাড়ি ঘরের পার্শ্ববর্তী মালিকানাধীন পাহাড়টি কেঁটে মহাৎসব চলছে। গুইমারা মেম্বার পাড়া হাকীম আলীর ছেলে আহম্মদ কবির, নুরু কবির ও তার ছেলে আনোওয়ার সরকারি নিয়মনীতি তোয়াক্কা না করে পার্শ্ববর্তী বাড়ির মালিক নুরুল আলমের সীমানা পাশে মাটি কেঁটে ঝুঁকি র্পূণ করে তুলছে। উত্তর পাশে ৬৫ ফুট প্রস্থ দিয়ে ১৪ ফুট দৈর্ঘ্য এবং দক্ষিণে জায়গা থাকার কথা ৬৫ ফুট কিন্তু তার মধ্যে আছে ৪১ ফুট আর পাহাড় কেঁটে তাদের দখলে নিয়েছে ২৪ ফুট। উচ্চতায় প্রায় মাটি কেটেছে ৭ থেকে ৮ ফুট। যেকোনো মুহুর্তে ধ্বসে যেতে পারে বাড়ি ঘরটি।
এছাড়াও স্থানীয় পশ্চিম বড়পিলাক বাসিন্দা ডাঃ মোঃ ছোরোয়ার তার দোকানের দক্ষিণ পাশে বিশাল পাহাড় কাঁটার অভিযোগ উঠেছে ও সিন্দুকছড়ির বিভিন্ন জায়গায় পাহাড় কাঁটার মহাউৎসব চলছে কিন্তু প্রশাসন নিরব ভুমিকা পালন করছে।
অন্যদিকে, আইন প্রয়োগ না করে স্থানীয়দের পাহাড় কাটতে উৎসাহ দিচ্ছে গুইমারা উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা। ব্যক্তি মালিকানাধীন জায়গার পাহাড় কাটা যাবে এমন বক্তব্যে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে সচেতন মহল। উল্লেকিত ব্যক্তিরা পার্শ্ববর্তী টিলা ভূমির মালিক হাজী মোমিনুল হক সওদাগরের রেকর্ডীয় ভূমি দখল করার অভিযোগ উঠেছে।
গুইমারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তুষার আহম্মেদ ঘটনাস্থলে পরিদর্শন করেও কোনো প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেননি এখনো। গুইমারা থানার অফিসার্স ইনচার্জ বিদুৎ বড়ুয়া বলেন’ পার্বত্য চট্টগ্রামে পাহাড় কাটা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ। সাংবাদিক নুরুল আলমের বাড়ির পাশে পাহাড় কাঁটছেন তা আমি লোকের মুখে শুনেছি। বিষয়টা আইনশৃঙ্খলা সভায় উপস্থাপন করেছি। উপজেলা নিবার্হী অফিসারের নির্দেশ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবো।

এই পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা আইনত দন্ডণীয় অপরাধ।

Design & Developed BY Muktodhara Technology Ltd
error: Content is protected !!