বুধবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২০, ০৫:৩৪ অপরাহ্ন

বহুল প্রত্যাশিত খাগড়াছড়ি জেলা আ’লীগের কাউন্সিল ও সম্মেলন কাল

বহুল প্রত্যাশিত খাগড়াছড়ি জেলা আ’লীগের কাউন্সিল ও সম্মেলন কাল

আল-মামুন,খাগড়াছড়ি:: অভিযোগ পাল্টা অভিযোগের মধ্য দিয়ে দীর্ঘ ৭ বছর পর বহুল প্রত্যাশিত খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলন ও কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হতে হচ্ছে কাল রবিবার। কাউন্সিলকে কেন্দ্র করে উৎসব মুখোর পরিবেশ বিরাজ করছে পাহাড়ি জনপদ খাগড়াছড়িতে। আগামী ২৪ নভেম্বর এই সম্মেলন সফল করতে বর্ণিল ব্যানার,পোষ্টার ও বিলবোর্ডে রঙিন হয়ে উঠেছে খাগড়াছড়ির রাজপথ। পদ প্রত্যাশীদের প্রচার-প্রচারণায় অলিগলি থেকে শুরু করে জেলা ছাড়িয়ে উপজেলাও এখন সরগরম হয়ে উঠেছে।

এ সম্মেলনে ৩ জন সভাপতি প্রার্থী ও সাধারণ সম্পাদক পদে ৭ জন প্রত্যাশী জয়ের লক্ষে কাজ করছে। তার মধ্যে রয়েছে সভাপতি পদে খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও এমপি কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা,সহ-সভাপতি সমীর দত্ত চাকমা ও খাগড়াছড়ির সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার রহিস উদ্দিন।

অপর দিকে সাধারণ সম্পাদক পদে ৭ প্রার্থীর মধ্যে কর্মী বান্ধব নেতা হিসেবে জেলাজুড়ে পরিচিত জেলা আওয়ামীলীগের শিক্ষা ও মানব বিষয়ক সম্পাদক দিদারুল আলম দিদার,সহ-সভাপতি মনির খান,ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক নির্মলেন্দু চৌধুরী,সাংগঠনিক সম্পাদক আ: জব্বার,সাবেক মাটিরাঙা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি শামসুল হক,দীঘিনালা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মোহাম্মদ কাশেম। এতে ২০৭ জন কাউন্সিলর তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারবেন বলে জানিয়েছে সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির যুগ্ম আহবায়ক নির্মলেন্দু চৌধুরী। তবে প্রনীত কাউন্সিলর তালিকা নিয়ম মেনে করা হয়নী বলেও প্রার্থী ও নেতাকর্মীদের রয়েছে নানা অভিযোগ।

সভাপতি/সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করলেও একপেশী রাজনীতি ও আধিপত্য বিস্তারের চেষ্টার অভিযোগ করেছে একে অপরের বিরুদ্ধে। বর্তমান সভাপতি ও এমপি কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা তার নিজের পচন্দের লোকদের দিয়ে উপজেলা কমিটি গঠনের মাধ্যমে আধিপত্য বিস্তার করে একপেশী রাজনীতি কায়েম করতে ষড়যন্ত্র মেতে উঠেছে বলে ২১ নভেম্বর অভিযোগ করে সমীর দত্ত চাকমা। সভাপতি ও সম্পাদক পদে প্রার্থীদের অনেকের অভিযোগ গঠনতন্ত্র ও নিয়ম অমান্য খাগড়াছড়িতে চলছে ষড়যন্ত্র ও ত্যাগী নেতাদের দলচ্যুত করার গভীর ষড়যন্ত্র। তবে অভিযোগকারীদের বিরুদ্ধে উল্টো অপপ্রচারের অভিযোগ তুলছেন আওয়ামীলীগের অভিযুক্ত সিনিয়র নেতারা। পরদিন জেলা ও নয় সদ্য গঠিত কমিটির নেতাকর্মীদের উপস্থিততে সমীর দত্ত চাকমার বিরুদ্ধে পাল্টা সংবাদ সম্মেলন থেকে ষড়যন্ত্রকারী ও ইউপিডিএফের এজেন্ট বলে অভিযোগ তুলেন।

এর মধ্যে পাল্টাপাল্টি অভিযোগের প্রভাব পড়তে শুরু করেছে তৃণমুল নেতাকর্মীদের মধ্যে। ক্ষোভ,হতাশা আর শঙ্কা থাকলে সব কিছু ছাপিয়ে সম্মেলন সফল করে গণতান্ত্রিক ভাবে ত্যাগী যোগ্য কর্মী বান্ধব সভাপতি ও সম্পাদক চায় নেতাকর্মীরা। এরই মধ্যে ঐতিহাসিক খাগড়াছড়ি আউটার স্টেডিয়াম মাঠে সম্মেলন অনুষ্ঠানের প্যান্ডেলসহ সকল প্রস্তুতি শেষে হয়েছে।

কে আসছে সভাপতি ও সম্পাদকের এ দুটি গুরুত্বপূর্ন নেতৃত্বে তার সমীকরণ নিয়েও চলছে শেষ নেই জল্পনা-কল্পনা। তবে রাজনৈতিক কৌশলে নতুন মেরুকরণে কার কপাল পুড়ছে আর কেইবা ভাগ্যবান তা এখন দেখার পালা।

বিগত ২০১২ সালে সম্মেলনের মাধ্যমে খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামীলীগের কমিটি গঠন করা হয়। এরপর দীর্ঘ ৭ বছরের মাথায় আগামী ২৪ নভেম্বর সম্মেলন নিয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে রয়েছে নানা শঙ্কাও । নানা আলোচনা-সমালোচনার পাশাপাশি ব্যানার বিলবোর্ড ও প্রচারপত্রে দৃশ্যমান হয়ে উঠেছে প্রার্থীদের নামও। এ যেন নতুন এক ব্যানার-বিলবোর্ডের শহর। আনন্দের বার্তার পাশাপাশি আশা-হতাশার চিত্রও তাড়া করছে নেতাকর্মীদের। সারাদেশে মত হাইব্রীট,অনুপ্রবেশকারীদের নিয়ে পাহাড়ি এ জেলার শীর্ষ নেতারা কি ভাবছেন তাই এখন দেখার পালা।

৯ উপজেলা নিয়ে গঠিত খাগড়াছড়ি জেলা কমিটির সম্মেলনে এমপি ও দলের খাগড়াছড়ি জেলা সভাপতি কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরার সভাপতিত্বে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের প্রধান অতিথি ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুল হক হানিফ,সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক শামীমসহ কেন্দ্রীয় ৮ নেতা অংশ নেওয়ার কথা রয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

Design & Developed BY CHT Technology
error: Content is protected !!