বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ০৩:১৮ পূর্বাহ্ন

রামগড়ে মেয়র প্রার্থী হিসাবে রফিকুল আলম কামাল আলোচনায় শীর্ষে : প্রতিবেদন-২

নুরুল আলম :: রামগড়ে মেয়র পদে প্রার্থী হিসাবে পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি রফিকুল আলম কামাল আলোচনায় শীর্ষে।তফসিল ঘোষনার পূর্বেই আওয়ামীলীগের প্রার্থীরা নিজ দলীয় মনোনয়ন পেতে শুরু করেছেন লবিং। অনেক আগে থেকেই ব্যানার-ফেস্টুনের পাশাপাশি স্থানীয় পত্রপত্রিকা ও সামাজিক মাধ্যমে প্রার্থীতার ঘোষণা দিয়েছেন আওয়ামীলীগের প্রার্থীরা। তবে অনেক আগে থেকে গণসংযোগে আসা প্রার্থীরা দল ভিত্তিক স্থানীয় সরকার নির্বাচনের সিদ্ধান্তে দলীয় মনোনয়ন নিয়ে সিদ্ধান্তহীনতায় ভুগছেন।

রামগড় উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মো: মোস্তফা হোসেন বলেন, কামাল ২০০২ থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত দলের দুঃসময়ে রামগড় উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি হিসাবে সংগঠনের নেতৃত্ব দেয়, তৎকালিন বিএনপি জামায়াত জোট সরকারের আমলে প্রচুর মামলা হামলার শিকার হয় কামাল, তারপর সে ২০১১ সালে তৃনমুলের ভোটে পৌর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক নির্বাচিত হয়। সাধারন সম্পাদক নির্বাচিত হওয়ার পর রামগড় পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগের শত শত নেতাকর্মী কামালের নেতৃত্বে আওয়ামী রাজনীতিতে একটি সাংগঠনিক বলয় তৈরি করে। এরপর ২০১৯ সালে কামাল পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি নির্বাচিত হয়। কামাল তৃনমুল থেকে উঠে আসা একজন ত্যাগি কর্মী। তাই আমি মনে করি কামালকে সঠিক জায়গায় বসিয়ে তার যথাযত মুল্যায়ন করা দরকার।

রামগড় উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক কাজী নুরুল আলম আলমগীর বলেন, আওয়ামীলীগের দলীয় প্রার্থীকে মনোনয়ন দেয়ার ক্ষেত্রে অবশ্যই তার রাজনৈতিক জীবন মূল্যায়ন করা উচিত। পাশাপাশি তাকে সাধারণ জনগণসহ দলীয় নেতা-কর্মীদের কাছে গ্রহনযোগ্য হতে হবে। যাদের বিরুদ্ধে দুর্নীতি, স্বজনপ্রীতি ও অতীতে দলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসাবে নির্বাচন করার অভিযোগ আছে এবং দলিয় নেতা কর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা হামলা করার অভিযোগ আছে তাদেরকে নৌকার মনোনয়ন না দেয়ার বিষয়ে আমার সিদ্ধান্তে আমি অনড়। বর্তমান পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাবেক ছাত্রনেতা কামাল ত্যাগি, বিশ্বস্ত, নিরাপদ ও পরীক্ষিত ব্যক্তি। স্থানীয় সরকার নির্বাচন সরাসরি তৃণমূল নেতা-কর্মী ও জনগণের নির্বাচন। তাই আমি মনে করি এক্ষেত্রে কামালের মত তৃনমুল থেকে উঠে আসা ত্যাগিদের মুল্যায়ন করা প্রয়োজন।

রামগড় উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক কাজী আমির হোসেন বিএসসি বলেন, রামগড় একটি প্রাচীন মহকুমা ও একটি সীমান্ত ঘেষা পৌর শহর, এখানে ভারত বাংলাদেশের ট্রানজিটের কাজ চলমান, রফিকুল আলম কামাল রামগড়ের একটি সভ্রান্ত পরিবারের সদস্য। রামগড়ের মত এমন সম্ভবনাময় শহরে কামালের মত একজন ত্যাগি ও শিক্ষিত ছেলে মেয়র পদে যদি নির্বাচিত হন তাহলে কামাল তার সততা ও দক্ষতা দিয়ে রামগড়কে দ্রুত একটি মডেল শহরে রুপান্তর করতে পারবেন বলে আমি আশাবাদি।

রামগড় উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ নুরুল আলম জিকু বলেন, রামগড় শহরের সৌন্দর্য্য বর্ধন, সড়ক যোগাযোগসহ বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ডের জন্য রফিকুল আলম কামালের মত সৎ লোকের খুবই প্রয়োজন। তৃনমুলে রফিকুল আলম কামাল খুবই একজন জনপ্রিয় ব্যক্তি। আমার মতে মেয়র পদে তিনি একমাত্র যোগ্য প্রার্থী। কামালের জন্যে শুভ কামনা রইলো।

এই পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা আইনত দন্ডণীয় অপরাধ।

Design & Developed BY Muktodhara Technology Ltd
error: Content is protected !!