সোমবার, ০২ অগাস্ট ২০২১, ০১:১৭ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
খাগড়াছড়ি জেলা আ’লীগের কমিটি অনুমোদন খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের শোক খাগড়াছড়িতে নিষিদ্ধ পিরানহা ব্যবসায়ীকে জরিমানা দীঘিনালায় অসুস্থ দুই ব্যক্তিকে সেনাবাহিনীর আর্থিক সহায়তা গুইমারায় অসহায় ব্যাক্তির ভূমি দখলের অভিযোগ দূর্ঘটনায় আহত শ্রমিককে মানবিক সহায়তা জেলা আইনজীবি সমিতির খাগড়াছড়িতে উপায় ‘এ দেওয়া যাবে ট্রাফিকের জরিমানা গুইমারা রিজিয়ন ও বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশন এর পক্ষ থেকে পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলে বাঙ্গালী ও পাহাড়ী জনগণের মাঝে মানবিক সহায়তা প্রদান। খাগড়াছড়িতে লকডাউনের ষষ্ঠ দিনেও কঠোর প্রশাসন খাগড়াছড়িতে ৩০ শয্যার করোনা ইউনিটের উদ্যোগ জেলা পরিষদের

আলোচনায় রামপ্রুচাই চৌধুরী

হাফছড়ি ইউপি নির্বাচনে নৌকার মাঝির

আল-মামুন,খাগড়াছড়ি:: আসন্ন গুইমারা উপজেলার হাফছড়ি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকার মাঝি কে হচ্ছে তা নিয়ে আলোচনা সর্বত্র ছড়িয়ে পড়েছে। তবে সে তালিকায় গ্রহণযোগ্য ও সুনামধন্য পরিবারের সন্তান হিসেবে পরিচিত রামপ্রুচাই চৌধুরীর নাম এখন সকলের মূখে মূখে। আওয়ামীলীগের কর্মী বান্ধন একনিষ্ঠ ত্যাগী নেতা হিসেবেও পরিচিতি রয়েছে তার।

রাম্প্রুচাই চৌধুরী খাগড়াছড়ির সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি কুজেন্দ্র লাল এমপি, খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মংসুইপ্রু চৌধুরী অপু এবং জেলা পরিষদের সদস্য গুইমারা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মেমং মারমাসহ দলীয় নেতাকর্মী চাইলে আসন্ন ইউপি নির্বাচনে ২নং হাফছড়ি ইউপি নির্বাচনের নৌকার প্রর্তীকের প্রার্থী হতে চান।

তিনি জানান,পাহাড়ী-বাঙ্গালীসহ সকল সম্প্রদায়ের জনগনের সেবা করাই আমার লক্ষ। সকলে চাইলে আমি নিজেকে আত্ম নিয়োগ করবো। অসাম্প্রদায়িক চেতনায় আমি বিশ্বাসী। এদেশে সকলে আমরা একে অপরের ভাই। ভাই-ভাই মিলে ভ্রাতৃত্বের বন্ধন অটুট রাখতে যা যা উদ্যোগ নিতে হয় সে লক্ষে তিনি কাজ করে যাবেন বলে জানান।

রাম্প্রুচাই চৌধুরী সবসময় সবার সাথে হাস্যজ্জ্বল একজন নিরহংকার মানুষ। তিনি নানা সমাজিক কর্মকাণ্ডে নিজেকে আত্ম নিয়োগ করে দীর্ঘ দিন ধরে সেবামূলক কাজ করে যাচ্ছেন। সব সময় সাধারণ মানুষের সুখে-দুঃখে সকলের পাশে দাঁড়ানোর ফলে অল্প সময়ে মধ্যে তিনি সকলের কাছে গ্রহণযোগ্য ও সুপরিচিত পেয়েছে। জাতী-ধর্ম-নির্বিশেষে সকলের কাছে আত্মাও ভালোবাসার মানুষ হিসেবে রাম্প্রুচাই চৌধুরী।

রামপ্রুচাই চৌধুরী ইচ্ছা প্রকাশ করে বলেন, আমাকে যদি এলাকাবাসী তাদের পাশে দাঁড়ানো এবং তাদের দুঃখ-কষ্টগুলো ভাগ করে নেয়ার সুযোগ দেয় তবে তিনি ২নং হাফছড়ি ইউনিয়নের জনগণের জন্য কাজ করে যেতে চান। বিগত দিনগুলোতে আমি দলের জন্য এবং আমার ইউনিয়নবাসীর জন্য যে সকল কাজ ও সহযোগিতা করে আসছি,আমি বিশ্বাস করি হাফছড়ি ইউনিয়নের জনগণ আমার সাথে আছেন এবং ভবিষ্যৎ থাকবেন।

২নং হাফছড়ি ইউপি নির্বাচনে নৌকার প্রর্তীকে তিনি নিজেকে চেয়ারম্যান প্রার্থী বলেও ঘোষনা দেন। সে সাথে হাফছড়ি ইউনিয়নের প্রতিটি গ্রামে শেখ হাসিনার উন্নয়ের বাণী পৌঁছোনোর দায়িত্ব নেওয়ার কথা জানান তিনি। তিনি বর্তমানে গুইমারা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এর দায়িত্ব পালন করছেন।

সংগঠন তাকে ত্যাগের মূল্যায়ন করে মনোনয়ন দেবে প্রত্যাশার কথা জাসিয়ে তিনি,আসন্ন নির্বাচনে সুযোগ করে দিলে তিনি জনগণের সেবায় জীবন উৎসর্গ করবেন বলেও জানান। সে সাথে জাতির জনক বাঙ্গালি জাতির অবিসংবাদিক নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শকে অনুসরণ করে ২নং হাফছড়ি ইউনিয়নবাসীর দোয়া ও সহযোগিতা কামনা করেন। পাশাপাশি দেশকে ডিজিটাল বাংলাদেশ হিসাবে গড়ার স্বপ্ন বাস্তবায়ন করে জনগণের মূখে হাঁসি ফুটানোই তার লক্ষ থাকবে বলে তিনি জানান।

এই পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা আইনত দন্ডণীয় অপরাধ।

Design & Developed BY Muktodhara Technology Ltd