শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২, ০৮:৫৯ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
নিজগুণে “পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আব্দুল আজিজ” থাকবেন খাগড়াছড়িবাসীর হৃদয়ে আবারো গুইমারায় শান্তিপরিবহন ও কাভার্ডভ্যান মুখোমুখি সংঘর্ষে- নিহত ১ খাগড়াছড়িতে বিদ্যালয়ের গেট চাপায় শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন পাহাড়ে সুবিধা বঞ্চিত গরীব-মেধাবী শিক্ষার্থীদের শিক্ষাবৃত্তি ও সার্টিফিকেট বিতরণ খাগড়াছড়িতে বিদ্যালয়ের গেইট ভেঙ্গে শিশু শিক্ষার্থীর মৃত্যু মাটিরাঙ্গায় অর্থ লেনদেনকে কেন্দ্র করে হাতা-হাতিতে “হাসান আল মামুন” আহত খাগড়াছড়িতে আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবস নিয়ে পাল্টা-পাল্টি কর্মসূচি খাগড়াছড়িতে জ্বালানী তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে ইসলামী আন্দোলনের বিক্ষোভ ‘পাহাড়ের উন্নয়নে সকল সম্প্রদায়ের সম-অংশীদারিত্ব প্রয়োজন’- সাবেক রাষ্ট্রদূত রাঙামাটিতে বঙ্গমাতার ৯২তম জন্মবার্ষিকী পালিত
খাগড়াছড়িতে ধর্মীয় পরীক্ষায় কৃতি শিক্ষার্থীদের বৃত্তি ও সনদ বিতরণ

খাগড়াছড়িতে ধর্মীয় পরীক্ষায় কৃতি শিক্ষার্থীদের বৃত্তি ও সনদ বিতরণ

নিজস্ব প্রতিবেদক,খাগড়াছড়ি:: ধর্মীয় বৃত্তি পরীক্ষায় কৃতি শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা সামগ্রী,বৃত্তি ও সনদ বিতরণ করা হয়েছে খাগড়াছড়িতে। বাংলাদেশ মারমা ভাষা ধর্মীয় শিক্ষা পরিষদের আয়োজনে ৭ম বার্ষিকী বৃত্তি,সনদ ও সম্মাননা উপলক্ষে শুক্রবার সকালে ক্ষুদ্র-নৃগোষ্ঠি সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট এ আয়োজন করা হয়।

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন, খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মংসুইপ্রু চৌধুরী অপু। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি বক্তব্যে ধর্মীয় শিক্ষায় যে কোন ধরনের সহায়তার কথা জানিয়ে আর্থিক সহায়তার হাত বাড়িয়ে দেন।

বাংলাদেশ মারমা ভাষা ধর্মীয় শিক্ষা পরিষদের সভাপতি ভদন্ত ওয়িমালা থের সভাপতিত্বে এতে আর্শীবাদক ছিলেন, ভদন্ত ওয়েন্না মহাথের, প্রধান আলোচক ছিলেন, ভদন্ত উত্তমা মহাথের। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, খাগড়াছড়ি ক্ষুদ্র-নৃগোষ্ঠি সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট এর উপ-পরিচালক জিতেন চাকমা।

এতে নিজ মাতৃভাষায় শিক্ষার পাশপাশি ধর্মীয় বিভিন্ন শান্তি-শৃঙ্খলা ও সুন্দর পরিবেশে বসবাস ও জীবনযাত্রার বিষয়ে ধর্মীয় দিক নির্দেশনার কথা তুলে ধরেন ধর্মীয় গুরুরা। পরে বাংলাদেশ মারমা ভাষা ধর্মীয় শিক্ষায় অংশ নেওয়া ৯৭৩ শিক্ষার্থীর মধ্যে কৃতকার্য ৭৭৬ তার মধ্যে এ প্লাস প্রাপ্ত ৪০ মেধাবী শিক্ষার্থীর মাঝে সনদ ও শিক্ষা বৃত্তি তুলে দেওয়া হয়।

অনুষ্ঠানে বিভিন্ন ধর্মীয় নিয়ম-কানুনসহ ধর্মীয় ও মাতৃভাষা শিক্ষা চালুর উপর আলোচনায় করা হয়। সে সাথে নৈতিক শিক্ষা,ধর্মীয় জ্ঞান আহরণ,ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি রক্ষা, হিংসা-বিদ্বেষ ভুলে সকলে মিলে বসবাসের উপর আলোচনার কথা তুলে ধরা হয়।

এই পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা আইনত দন্ডণীয় অপরাধ।

Design & Developed BY Muktodhara Technology Ltd