বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ০৫:০৯ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
মিয়ানমারের অভ্যন্তরীণ বিশৃঙ্খলায় ক্ষতির সম্মুখীন বাংলাদেশ গুইমারাতে জাতীয় কন্যাশিশু দিবস ২০২২ উদযাপন খাগড়াছড়িতে শারদীয় দুর্গোৎসবে গুইমারা সেনা রিজিয়নের সহায়তা ও শুভেচ্ছা বিনিময় পাহাড়ে সকল সম্প্রদায়ের ঐক্যবদ্ধ সহাবস্থান শান্তি-সম্প্রীতির উদাহরণ ২৩ প্রকল্পের কাজ না করে ভূয়া বিল দেখিয়ে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ পাহাড়ের তিন ফুটবল কণ্যা ও সহকারি কোচকে পুনাকের সংবর্ধনা খাগড়াছড়িতে আন্তর্জাতিক প্রবীণ দিবস পালিত প্রকল্পের কাজ না করে ভূয়া বিল ভাউচার দেখিয়ে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতিতে শারদীয় দূর্গোৎসব আনন্দ মুখোর করে তোলার আহ্বান কাউখালীর ঘাগড়ায় লরির ধাক্কায় শিশু নিহত
সঠিক ব্যয় বিশ্লেষণ করে নতুন বাস ভাড়া নির্ধারণের দাবী যাত্রী কল্যাণ সমিতির

সঠিক ব্যয় বিশ্লেষণ করে নতুন বাস ভাড়া নির্ধারণের দাবী যাত্রী কল্যাণ সমিতির

প্রেসবিজ্ঞপ্তি:: একচেটিয়াভাবে বর্ধিত তেলের মূল্য প্রত্যাহারের দাবীতে যাত্রী কল্যাণ সমিতিসহ বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠন যখন মাঠে আন্দোলনরত, ঠিক তখনই, জ্বালানীর মূল্য প্রত্যাহারের দাবী না তুলে বাস মালিকেরা সরকারের সাথে মিলেমিশে বাস ভাড়া বাড়াতে ব্যস্ত। আন্তর্জাতিক ক্রেতা-ভোক্তা আইন লংঘন করে যাত্রী প্রতিনিধি ছাড়া বিআরটিএ ও পরিবহন মালিক সমিতি কর্তৃক ঘোষিত বর্ধিত বাস ভাড়া প্রত্যাহার করে সঠিক ব্যয় বিশ্লেষণ করে নতুনভাবে বাস ভাড়া নির্ধারণের দাবী জানিয়েছে বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতি।

আজ ০৭ আগষ্ট রবিবার সকালে গণমাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে সংগঠনের মহাসচিব মো. মোজাম্মেল হক চৌধুরী এ দাবী জানান।

তিনি বলেন, গেল নভেম্বরে জ্বালানী তেলের মূল্য লিটার প্রতি ১৫ টাকা বৃদ্ধির সময়ে বাস ভাড়া ৩৫ শতাংশ হারে বাড়ানো হয়। এর ৯ মাসের মাথায় আবারো জ্বালানী তেলের মূল্য বৃদ্ধির সাথে সাথে সঠিক ব্যয় বিশ্লেষণ ব্যাতিরেখে এক লাফে বাস ভাড়া আবারো ২২ শতাংশ হারে বাড়ানো হয়। প্রতিটি পুরোনো লক্কড়-ঝক্কড় বাসকে শো-রুম থেকে নামানো নতুন বাসের দাম, ব্যাংক সুদ ও অন্যান্য নতুন বাসের সুযোগ-সুবিধার হিসাব ধরে ব্যয় বিশ্লেষণ করা হলেও সিটি সার্ভিসে ৯৮ শতাংশ বাস-মিনিবাস চলাচলের অযোগ্য। আন্তঃজেলা দুরপাল্লায় ৪৮ শতাংশ বাস ২০ বছরের বেশি সময় ধরে চলছে। এসব বাস অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ। পুরোনো এসব বাসের যাত্রী সেবার মান তলানীতে গিয়ে ঠেকেছে। গতকালের বাস ভাড়া বৃদ্ধির সভায় এসব বাসকে চকচকা নতুন বাস হিসেবে ব্যয় বিশ্লেষণ করায় যাত্রীস্বার্থ চরমভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। তিনি নতুন বাস এবং পুরাতন বাস আলাদা আলাদা ব্যয় বিশ্লেষণ ও আলাদা আলাদা ভাড়া নির্ধারণের দাবী জানান।

তিনি আরো বলেন, সরকার বাস মালিকদের প্রেসক্রিপশন অনুযায়ী ভাড়া নির্ধারণ করলেও কোন বাসে সরকার নির্ধারিত ভাড়া কার্যকর নেই। সরকার নির্ধারিত ভাড়ার বেশ কয়েকগুণ বর্ধিত ভাড়া বাসে বাসে আদায় হলেও সরকার কার্যত এসব বাসের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নিতে পারে না। সিটি সার্ভিসে সরকার কিলোমিটার প্রতি ভাড়া নির্ধারণ করলেও বাসে বাসে ওয়েবিলে যাত্রীর মাথা গুণে গুণে ভাড়া আদায় করা হয়। ঢাকা মহানগরীর কথিত সিটিং সার্ভিসে স্বল্প দুরুত্বে যাতায়াত করলেও সর্বশেষ গন্তব্য পর্যন্ত ভাড়া পরিশোধ করতে হয়। ঈদ ও পূজা-পার্বণে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের নৈরাজ্যে দিশেহারা হয়ে পড়েন যাত্রী সাধারণ। এহেন পরিস্থিতি তুলে ধরে দেশের ১৬ কোটি যাত্রী সাধারণের দূর্ভোগের কথা বলতে যাত্রী কল্যাণ সমিতি বাস ভাড়া নির্ধারণের সভায় প্রতিনিধিত্ব করতে বার বার আবেদন নিবেদন করলেও সরকার বাস মালিকদের বিশেষ সুবিধা দিতে যাত্রী প্রতিনিধি ছাড়া বার বার বাস ভাড়া নির্ধারণ করে থাকেন। অনতিবিলম্বে বর্ধিত বাস ভাড়া প্রত্যাহার করে সঠিক ব্যয় বিশ্লেষণপূর্বক নতুন ভাড়া নির্ধারণের দাবী জানান তিনি।

এই পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা আইনত দন্ডণীয় অপরাধ।

Design & Developed BY Muktodhara Technology Ltd