শুক্রবার, ২৫ Jun ২০২১, ০৫:৩৬ পূর্বাহ্ন

শঙ্কা আর আতঙ্কে পাহাড়ের বাগান মালিকরা

শঙ্কা আর আতঙ্কে পাহাড়ের বাগান মালিকরা

আল-মামুন, খাগড়াছড়ি

চাঁদা দেওয়ার পরও খাগড়াছড়ির পানছড়িতে রক্ষা পায়নি আওয়ামীলীগ নেতার বাগান। বৃহস্পতিবার দিবাগত-রাতে উপজেলার আলীচানপাড়া ও কালানাল এলাকায় সন্ত্রাসীরা কেটে সাবার করে দেয় বিভিন্ন প্রজাতির ফলজ ও সেগুন বাগান। এ ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করে বাঙ্গালী বাগান মালিকরা। আতঙ্ক বিরাজ করছে স্থানীয় বাগান মালিকদের মাঝে।

এই ঘটনার জন্য পাহাড়ের আঞ্চলিক সংগঠন ইউপিডিএফকে দায়ী করলেও অভিযোগ অস্বীকার করেছে সংগঠনটি। প্রসীতপন্থী ইউপিডিএফ এর সংগঠক অংগ্য মারমা বলেন, এ ধরনের ঘটনার সাথে আমাদের সংগঠন জড়িত নয়। তিনি আরো বলেন, আওয়ামীলীগের নিজেদের দ্বন্দ্বের জের ধরে এ ঘটনা ঘটিয়ে ইউপিডিএফর বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে পানছড়ি থানার অফিসার মোহাম্মদ দুলাল হোসেন বলেন,বিষয়টি শুনেছি তবে এখন পর্যন্ত লিখিত অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে পরবর্তী আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে তিনি জানান।

জানা যায়, পানছড়ি উপজেলার ৩নং পানছড়ি সদর ইউপি আওয়ামীলীগের সভাপতি ওবায়দুল হক এর আলীচাঁনপাড়া ৮ একর জমিতে ৩ শতাধিক আম গাছ, ৫ হাজার সেগুন গাছ এবং ২ শতাধিক কলাগাছসহ একটি বাগান সৃজন করে। এরপর সন্ত্রাসীদের ধার্য্যকৃত চাঁদাও পরিশোধ করে তারা।

ওবাদুল হক বলেন, প্রতিবেশি আলো চাকমা পূর্বে আমাকে বাগানে না যাওয়ার জন্য বিভিন্ন রকম হুমকি দিয়ে আসছে। আবার বাগানে পাহারা না দেওয়ার জন্য জোর পূর্বক ষ্টাম্পে সই-স্বাক্ষর নিয়েছে। পরে আমি থানায় সাধারন ডাইরী করে।

বর্তমানে ৮ একর বাগান কেটে ফেলার বিষয়ে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানান, বাগান মালিক ওবায়দুল হক। এছাড়াও কালানাল এলাকার বাসিন্দা মোঃ ইয়াসিন মিয়ার ২ একর জমির ৩ শতাধিক আম গাছ সন্ত্রাসীরা কেটে ফেলার অভিযোগ পাওয়া যায়। এসকল ঘটনায় পাহাড়ে বাগানিদের মধ্যে ক্ষতির আশঙ্কাসহ আতঙ্ক বিরাজ করছে।

এই পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা আইনত দন্ডণীয় অপরাধ।

Design & Developed BY Muktodhara Technology Ltd