শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:১৮ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
মাল্টিপ্লাগে বিদ্যুতায়িত হয়ে শিশুর মৃত্যু গুইমারায় শহিদ লেঃ মুশফিক সঃ প্রাঃ বিদ্যালয়ে অভিভাবক ও শিক্ষকদের মতবিনিময় সভা প্রধান শিক্ষক ও সভাপতির পরস্পর বিরোধী অভিযোগের তদন্ত শুরু! সাজেকে মাইক্রোবাস উল্টে পুলিশ সদস্যসহ ৯ পর্যটক আহত জলের নিচে রাঙামাটির ঝুলন্ত সেতু গুইমারায় সেনা অভিযানে একজনকে অস্ত্রসহ আটক মাটিরাঙার গোমতি বিদ্যালয়ের কমিটির সভাপতি ও প্রধান শিক্ষক পরস্পর বিরুধী অভিযোগ খাগড়াছড়িতে করোনা প্রতিরোধে সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ করোনার সংক্রমণে সচেতন আবশ্যক গুইমারায় সেনাবাহিনীর মতবিনিময় সভা এলজিইডি উন্নয়ন কার্যক্রম “ধারাবাহিক উন্নয়নে বাড়ছে স্বস্থি” কমছে জনভোগান্তি
মাটিরাঙায় তিন সন্তানের জননীর আত্মহত্যা

মাটিরাঙায় তিন সন্তানের জননীর আত্মহত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক:: খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গায় সালমা আক্তার (২৭) নামে তিন সন্তানের জননী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে। সোমবার (৩০ আগষ্ট) বেলা ১১টার দিকে মাটিরাঙ্গা পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের ডাক্তার পাড়ার নিজ বাড়ির রান্না ঘরে গলায় ফাঁস দিয়ে তিনি আত্মহত্যা করেন।

নিহত সালমা আক্তার ডাক্তার পাড়ার বাসিন্দা মোহাম্মদ হোসেন লিটন এর স্ত্রী। নিহতের স্বামী মাটিরাঙ্গার পূর্ব খেদাছড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক। গৃহবধূ সালমা আকতারের মৃত্যুর বিষয়টি মাটিরাঙ্গা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ আলী নিশ্চিত করেন।

স্থানীয় সূত্রে জানায়, স্বামী সকালের দিকে স্কুলে চলে যাওয়ার পর নিজ বাড়ির রান্না ঘরের আঁড়ার সাথে গলায় ফাঁসি দিয়ে আত্মহত্যা করে তিনি। মায়ের ঝুলন্ত লাশ দেখার পরে তার বাচ্চারা চিৎকার করলে প্রতিবেশীরা তাকে উদ্ধার মাটিরাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মিল্টন ত্রিপুরা তাকে মৃত ঘোষনা করেন। মাটিরাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাক্তার মিল্টন ত্রিপুরা বলেন, হাসপাতালে আনার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে।

নিহেতর স্বামী মোহাম্মদ হোসেন লিটন জানান, একমাস আগে আমার স্ত্রী তৃতীয় কণ্যা সন্তানের মা হয়েছে। তৃতীয় কণ্যা সন্তান হওয়ার বিষয়টি জানার পর থেকেই আমার স্ত্রী মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়ে। এ জন্য তার চিকিৎসাও চলছিল।

মাটিরাঙ্গা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ আলী বলেন, লাশ ময়না তদন্তের জন্য খাগড়াছড়ি জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে নিহতের লাশ হস্তান্তর করা হবে।

এই পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা আইনত দন্ডণীয় অপরাধ।

Design & Developed BY Muktodhara Technology Ltd