শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ০৪:১০ পূর্বাহ্ন

আত্মহত্যা নাকি পরিকল্পিত হত্যা!

নিজস্ব প্রতিবেদক:: পার্বত্য জেলার খাগড়াছড়ির গুইমারা উপজেলাধীন বড় পিলাক গ্রামের ৫ নাম্বার নামক স্থানে খালেদা আক্তার(২৮) নামে এক নারীর রহস্যজনক মৃত্যু ঘটে। মৃত্যুর আসল ঘটনা ধামাচাপা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে পরিবারের পক্ষ থেকে।

ভুক্তভোগীর ভাই মোঃ সিরাজুল ইসলাম বাদী হয়ে গত ৮ মে ২০২২ তারিখে গুইমারা থানায় বিবাদী মোহাম্মদ শুক্কুর আলী নামক এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে বিভিন্ন ভাবে হুমকি এবং বসবাসরত জায়গা থেকে উচ্ছেত করার চেষ্টা নিয়ে একটি অভিযোগ দায়ের করেন। ইতিপূর্বে শুক্কুর আলী, মো: সিরাজুল ইসলামের পৈত্রিক আড়াই একর জমি জোরপূর্বক দখল করে নিয়েছে।

জানা যায়, ভুক্তভোগীদের মোহাম্মদ শুক্কুর আলী থানায় অভিযোগ দেওয়ার আগে ও পরে নানান ধরনের হুমকি ধামকি দিয়ে আসছেন। এক পর্যায়ে তাদের বাড়িঘর হতে উচ্ছেদ করে দেওয়ার ভয়-ভীতি ও হুমকি দিলে তারা নিরুপায় হয়ে থানায় অভিযোগ দেন।

উল্লেখ,গত ১২ এপ্রিল ২০২২ তারিখ (মঙ্গলবার) সকাল ০৯ টার দিকে এমন ঘটনা ঘটলে গুইমারা থানার ওসি (তদন্ত) কাজী আব্দুল খালেক সেখানে গিয়ে উপস্থিত হয়। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে এবং থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য পুলিশ খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে। ময়নাতদন্তের কাজ সম্পন্ন হলে পুনরায় লাশ তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

ভুক্তভোগীর পরিবার জানান, বর্তমানে আমরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। এছাড়াও একটি মহল এ ঘটনা ধামাচাপা দেওয়ার অপচেষ্টা চালাচ্ছে। আমরা চাই সুষ্ঠু তদন্তের ভিত্তিতে প্রশাসন যেন দোষীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করে এবং দোষীকে আইনের আওতায় এনে উপযুক্ত শাস্তির ব্যবস্থা করার জন্য জোর দাবি জানাচ্ছি।

এই পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা আইনত দন্ডণীয় অপরাধ।

Design & Developed BY Muktodhara Technology Ltd