মঙ্গলবার, ২৮ Jun ২০২২, ১১:১৮ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
খাগড়াছড়িতে সেইফ’এর দক্ষতা উন্নয়নে অবহিতকরণ কর্মশালা গুইমারায় সেনাবাহিনীর অভিযানে বিপুল অবৈধ কাঠ জব্দ গুইমারায় স্কুল ব্যাগ,সেলাই মেশিন ও স্যানিটারী ন্যাপকিন বিতরণ খাগড়াছড়িতে আ’লীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন ২২ জুন থেকে কাপ্তাই হ্রদে চলবে লঞ্চ স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের নিরব ভূমিকায় খাগড়াছড়ির মানিকছড়িতে সাংবাদিক পরিবারের জায়গা উপর হামলা ও জায়গা দখলের চেষ্টা পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে খাগড়াছড়ি সাংবাদিক ইউনিয়নের প্রার্থনা ও খাবার বিতরণ খাগড়াছড়ির সড়ক বিভাগের সবুজ চাকমা শুদ্ধাচার পুরস্কার পেলেন ভারীবর্ষণে পাহাড় ধ্বসের আশঙ্কায় নানিয়ারচরে প্রশাসনের সচেতনতামূলক অভিযান বাঘাইছড়িতে বন্যার্তদের মাঝে ২৭ বিজিবির ত্রাণ বিতরণ
মানিকছড়িতে গুদামের তালা ভেঙে ১৪ লাখ টাকার মালামাল চুরি

মানিকছড়িতে গুদামের তালা ভেঙে ১৪ লাখ টাকার মালামাল চুরি

নুরুল আলম:: খাগড়াছড়ি জেলার মানিকছড়ি উপজেলা সদর রাজবাজারে মের্সাস মজুমদার স্টোরের গুদামের তালা ভেঙ্গে ৩৭ কার্টুন মেরিজ সিগারেট লুটে নিয়েছে একটি সংঘবদ্ধ চোর চক্র। এতে মালিকের প্রায় ১৪ লাখ টাকার মাল ও অর্থ খোয়া গেছে।

পুলিশ ও ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ী সূত্রে জানা গেছে, উপজেলা সদর রাজবাজারের ব্যবসায়ী প্রয়াত জীবন মজুমদারের মের্সাস মজুমদার স্টোর পরিচালনা করেছেন তাঁর স্ত্রী লাভলী মজুমদার। চাউল ব্যবসার পাশাপাশি আকিজ বিড়ি, মেরিজ সিগারেটসহ বিভিন্ন মালামালের পাইকার হিসেবে বাজারের অদূরে মুসলিমপাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়র সামনে গ্রামীণ টাওয়ার সংলগ্ন পাকা ভবনে সিগারেটের গুদাম। ১২ জুন ভোর রাতের কোন এক সময় ভবনের মূল ফটকের পাশাপাশি পরপর আরও দুইটি কক্ষের তালা ভেঙে ৩৭ কার্টুন মেরিজ সিগারেট, (যার বাজার মূল্য ১৩ লাখ ৫৪ হাজার ৫০০ টাকা) ও নগদ ৪২ হাজার টাকা লুটে নেয় চোর চক্র।

সকালে ম্যানাজার রুবেল হোসেনসহ বিক্রয় প্রতিনিধিরা এসে দেখেন মূল ফটকের তালা ভেঙে একে একে আরও দুইটি কক্ষের তালা ভাঙ্গা! ঘরে প্রবেশ করে দেখেন ৩৭ কার্টুন (৩ লাখ ৭০ হাজার সিগারেট) যার বাজার মূল ১৩ লাখ ৫৪ হাজার ৫০০টাকার সিগারেট ও নগদ ৪২ হাজার টাকা চুরি করে নেয় চোর চক্র!

পরে বিষয়টি থানাকে অবহিত করলে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে ম্যানাজারসহ সংশ্লিষ্ট বিক্রয় প্রতিনিধিদের জিজ্ঞাসাবাদ করেন। প্রয়াত জীবন মজুমদারের স্ত্রী লাভলী মজুমদার বলেন, আমার স্বামী ও একমাত্র পুত্রের অকাল মৃত্যুর পর ব্যবসায়িক লেনদেনসহ নানা বিষয়ে মানুষজন আমাকে হয়রানি করেছে। এরই মাঝে রাতের আধাঁরে অজ্ঞাত চোর চক্র আমাকে নিঃস্ব করতেই গুদামের তালা ভেঙে সব লুটে নিল! আমার খোয়া যাওয়া মালামাল উদ্ধারে পুলিশের হস্তক্ষেপ চাই।

থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ও.সি) মোহাম্মদ শাহনূর আলম বলেন, বাজারের অদূরে অরক্ষিত জায়গায় এভাবে ব্যবসায়িক মালামাল গুদামজাত করা ঠিক হয়নি। পুলিশ বিষয়টি খতিয়ে দেখছে।

এই পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা আইনত দন্ডণীয় অপরাধ।

Design & Developed BY Muktodhara Technology Ltd