রবিবার, ০২ অক্টোবর ২০২২, ১২:৫৫ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
পাহাড়ের তিন ফুটবল কণ্যা ও সহকারি কোচকে পুনাকের সংবর্ধনা খাগড়াছড়িতে আন্তর্জাতিক প্রবীণ দিবস পালিত প্রকল্পের কাজ না করে ভূয়া বিল ভাউচার দেখিয়ে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতিতে শারদীয় দূর্গোৎসব আনন্দ মুখোর করে তোলার আহ্বান কাউখালীর ঘাগড়ায় লরির ধাক্কায় শিশু নিহত শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে খাগড়াছড়ি রিজিয়নের আর্থিক অনুদান প্রদান খাগড়াছড়িতে ভালোবাসায় সিক্ত হলো সাফজয়ী তিন কৃতি ফুটবলার মানিকছড়িতে কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষক স্বল্পতা ও বিদ্যুতের লো-ভোল্টেজে পাঠদান ব্যাহত খাগড়াছড়িতে ৩ কৃতি নারী ফুটবলার ও কোচকে বরণ কাল খাগড়াছড়িতে নানা আয়োজনে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উদযাপন
মাটিরাঙ্গায় অনৈতিক কাজের সময় হাতেনাতে ধরা খেলেন স্কুল শিক্ষক

মাটিরাঙ্গায় অনৈতিক কাজের সময় হাতেনাতে ধরা খেলেন স্কুল শিক্ষক

নিজস্ব প্রতিবেদক:: খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গায় অনৈতিক কাজ করার সময় স্থানীয়দের হাতে ধরা পড়েছে আহাদ বৈদ্য (৩২) নামে এক স্কুল শিক্ষক। রবিবার রাত ৯টার সময় বেলছড়ি ইউনিয়নের আম বাগান নামক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার দুইদিন পরও এখনো কোনো সমাধান হয়নি। এই ঘটনায় সুষ্ঠ সমাধান না হলে দিন দিন বাড়তে থাকবে অনৈতিক কাজ সহ নানান অপকর্ম।

জানা যায়, বেলছড়ি ৪নং ওয়ার্ড মেম্বার ও প্যানেল চেয়ারম্যান আমির হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘আমবাগান বর্ডার গার্ড সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আহাদ বৈদ্য ও একই গ্রামের বাসিন্দা মনির হোসেন পেশাগত কারণে দীর্ঘ দিন যাবত চট্টগ্রামে থাকে। এ সুযোগে মনিরের স্ত্রী নাসরিন আক্তার’র সাথে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ে স্থানীয় স্কুল শিক্ষক আহাদ বৈদ্য। গত ৪ থেকে ৫ বছর ধরে চলে তাদের নিরব পরকীয়া। সম্প্রতি কালে বৈদ্য-নাসরিনের অনৈতিক সম্পর্ক স্থানীয়দের দৃষ্টি গোচর হলে গোপনে তাদেরকে নজরদারিতে রাখা হয়। গত ২৮ আগস্ট রাতে এলাকার লোকজন বাসায় চলে গেলে সময় বুঝে নাছরিনের বাড়ির পিছনে জঙ্গলে নাছরিন ও বৈদ্য অনৈতিক কাজে লিপ্ত হয়। এসময় এলাকার লোকজন ধরে ফেলে তাদেকে।

উক্ত ঘটনা সমাধান কল্পে রাত দুইটা পর্যন্ত স্থানীয় গণ্যমান্য লোকজন সহ বৈদ্যের বাবা-মা নাসরিন-বৈদ্যের বিয়ে দেওয়ার এক মত পোষণ করে। নাসরিনও তাতে সম্মতি দেয়। যেহেতু নাছরিন অন্যের বিবাহিত স্ত্রী এবং একটি সন্তান রয়েছে এবং বৈদ্য দুই সন্তানের পিতা ও স্ত্রী আছে , তাই আইনি জটিলতার কথা চিন্তা করে আমি কোন সিদ্ধান্ত না দিয়ে প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির ৪ থেকে ৫ জন লোকের উপস্থিতিতে বাসায় চলে আসি ।

সোমবার সন্ধ্যায় আহাদ বৈদ্যের স্ত্রী সুমাইয়া বলেন, ‘নাছরিন এখন বৈদ্যের বাবার বাসায় আছে। তাদের বিয়ে হয়নি। থানায় অভিযোগ বা মামলাও হয়নি।

 

এই পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা আইনত দন্ডণীয় অপরাধ।

Design & Developed BY Muktodhara Technology Ltd