শিরোনাম
ইলেকট্রিক মিস্ত্রী নাসিরের উপর গুলির প্রতিবাদে মানববন্ধন দীঘিনালায় পিসিপির র‌্যালি ও ছাত্র সমাবেশ আর্ন্তজাতিক মাতৃ ভাষা দিবসে ফুল দিয়ে ভাষা শহিদদের শ্রদ্ধা নিবেদন করেন গুইমারা প্রেসক্লাব খাগড়াছড়িতে মহান শহীদ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত গুইমারাতে ইয়াবাসহ আটক-২ বাস-পিকআপ ভ্যানের সংঘর্ষে খাগড়াছড়িতে নিহত দুই পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরাকে খাগড়াছড়িতে নাগরিক সংবর্ধনা গুইমারায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে “বই পাঠ” উৎসব অনুষ্ঠিত পানছড়িতে সন্ত্রাসীদের গুলিতে যুবক গুলিবিদ্ধ প্রধান শিক্ষকহীন মাটিরাঙ্গা মডেল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়, পাঠদান ব্যাহত

খাগড়াছড়ি জোনের শান্তিচুক্তির ২৬তম বর্ষ উদযাপন

Reporter Name

নিজস্ব প্রতিবেদক,খাগড়াছড়ি:: খাগড়াছড়ি রিজিয়ন,খাগড়াছড়ি জোন এবং পার্বত্য খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদের আয়োজনে শান্তি চুক্তির ২৬তম বর্ষ উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত জাতীর পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান এর অস্থায়ী প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন,মেডিক্যাল ক্যাম্পেইন,র‍্যালি, কেক কাটা, আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। শনিবার ০২ ডিসেম্বর ২০২৩ সকালে এ বর্ণাঢ্য আয়োজন করা হয়।

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন, খাগড়াছড়ি রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ মোহতাশিম হায়দার চোধুরী। এ সময় উপস্থিত ছিলেন,খাগড়াছড়ি জোন, লেঃ কর্ণেল আবুল হাসনাত জুয়েল, পিএসসি, পুলিশ সুপার মুক্তাধর, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোঃ জোনায়েদ কবির সোহাগ এবং খাগড়াছড়ি অঞ্চলের সামরিক ও বেসামরিক উচ্চ পদস্থ সরকারী কর্মকর্তারা। অনুষ্ঠানটি সুষ্ঠ ও সফলভাবে সম্পম্পের জন্য খাগড়াছড়ি জোন সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করে।

খাগড়াছড়ি জোনের জোন কমান্ডার লেঃ কর্ণেল আবুল হাসনাত জুয়েল পিএসসি এর নির্দেশনায় খাগড়াছড়ি জোনের আওতাধীন সকল ক্যাম্পে প্রায় ৩০০ জন হেডম্যান ও কারবারীদের মাঝে টি শার্ট, ক্যাপ এবং ৫০০ জন অসুস্থদের মাঝে চিকিৎসা সেবাসহ সহায়ক সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

শান্তি চুক্তির ২৬তম বর্ষ উদযাপন উপলক্ষে জোন কমান্ডার, খাগড়াছড়ি জোন, লেঃ কর্ণেল আবুল হাসনাত জুয়েল বলেন,আমাদের প্রিয় বাংলাদেশের ইতিহাসে ডিসেম্বর মাস হলো ঐতিহাসিক ও মহিমান্বিত বিজয়ের মাস। বিজয়ের এই মাসেই অসাধারণ একটি দিন হলো ২রা ডিসেম্বর যা অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের পার্বত্য চট্টগ্রামে শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য একটি মহা বিজয়ের দিন।

তিনি আরোও উল্লেখ করেন যে বিজয়ের এই দিন হলো সকল অকল্যাণ, অসুন্দর ও অশান্তির বিরুদ্ধে শান্তির বিজয়ের দিন। দীর্ঘ এক রক্তাক্ত অধ্যায় পেরিয়ে আমরা পেয়েছি ঐতিহাসিক পার্বত্য শান্তি চুক্তি যার মাধ্যমে পার্বত্য চট্টগ্রামে সৃজিত হয়েছে শান্তি, সম্প্রীতি, স্থিতিশীলতা ও অপার সম্ভাবনার এক নতুন দুয়ার। তিনি শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন তাদের অবদানকে, যাদের অক্লান্ত পরিশ্রম এবং প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ সমর্থন ও সহযোগিতার ফলে পাহাড়ে শান্তি প্রতিষ্ঠার কার্যক্রম সফল হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ
© 2019, All rights reserved.
Developed by Raytahost
error: Content is protected !!